Copyright 2017 - Custom text here

ডায়ারিয়া প্রতিরোধ ও প্রতিকার

User Rating: 0 / 5

Star InactiveStar InactiveStar InactiveStar InactiveStar Inactive
 

ডায়রিয়া  হল প্রতি দিন কমপক্ষে তিনবার পাতলা বা তরল

মলত্যাগ হওয়ার রোগ। এটা প্রায়শ কয়েক দিন স্থায়ী হয় এবং

এর ফলস্বরূপ তরল বেরিয়ে যাওয়ার কারণে পানিশূন্যতা হতে পারে।

কারণসমূহ  :

সবচেয়ে সাধারণ কারণ হল কোনো ভাইরাস,ব্যাকটেরিয়া বা

পরজীবির সংক্রমণ। ; অথবা  গ্যাস্ট্রোএন্টারাইিটস নামে পরিচিত

একটি রোগের কারণে অন্ত্রের একটি সংক্রমণ। এই সংক্রমণগুলো

বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই মল দ্বারা দূষিত খাবার বা জল থেকে হয় অথবা

সংক্রামিত অন্য কোনো ব্যক্তির থেকে সরাসরি হয়। 

ডায়ারিয়ার প্রতিকার

সাধারণ ডায়ারিয়া ঘটলে এটা নিজে নিজেই সেরে যায়। রোগ যতদিন

চলে তত দিন রোগীকে স্যালাইন খাওয়াতে হয়। স্যালাইন শরীরে

পানিশুন্যতা রোধ করে। কলেরা জীবানু দ্বারা ডায়ারিয়া হলে প্রতিদিন

শরীর থেকে ২০-৩০ লিটার পানি বের হয়ে যায়। যা শরীরের জন্য

মারাত্বক ক্ষতিকর। তার যত দিন রোগ চলে ততদিন রোগীকে খাওয়ার

স্যালাইন খাওয়াতে হবে।

 

ডায়রিয়ার প্রতিরোধ :

UNICEF এর মতে মলত্যাগ করার পর সাবান দিয়ে হাত ধোয়া

ডায়ারিয়ার সম্ভবনা ৪০% হ্রাস করে । কিছু কিছু ক্ষেত্রে ডায়ারিয়া

প্রতিরোধের জন্য ভ্যাক্সিন আবিস্কার হয়েছে। এরমধ্যে সবথেকে

উল্লেখ্যযোগ্য হল কলেরা ভ্যাক্সিন। রোটাভাইরাসের বিরুদ্ধেও

ভ্যাক্সিন আবিস্কার হয়েছে।

 

f t g m

প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী : ডা: মো: হেলাল উদ্দিন

ব্যবহারের শর্তাবলী                                               গোপনীয়তার নীতি