Copyright 2017 - Custom text here

দুই বন্ধু - ২

User Rating: 5 / 5

Star ActiveStar ActiveStar ActiveStar ActiveStar Active
 

 বিকালে স্কুল থেকে ফেরার পর বাংলা কলেজ মাঠে খেলতে যাওয়ার মত যথেষ্ট সময় পাওয়া যায় না। তাই পাড়ার ছোট্র গলিই তার দিনের একমাত্র বিনোদন কেন্দ্র। সে প্রায়ই ভাবে, কিভাবে তার বাসার পাশে একটি ক্রিকেট মাঠের ব্যবস্হা করা যায়।

একদিনের ঘটনা, তখন ফেব্রুয়ারী মাস। বাংলা একাডেমির উদ্যােগে মাসব্যাপী একুশে  বইমেলা চলছে। অপূর্ব ও রাখিকে  নিয়ে তাদের শ্রদ্ধাভাজন বাবা কোন এক শীতের পড়ন্ত বিকেলে সোহরাওয়াার্দি উদ্যানে আসেন। প্রথমা প্রকাশনীর স্টলে যেতেই রাখির নজরে আসে মুহাম্মদ জাফর ইকবালের লেখা "এখন তখন মানিক রতন" বইটি।

এমনিতেই সাইন্স ফিকশনের প্রতি তাদের দুই ভাই-বোনের রয়েছে অন্যরকম ঝোঁক, উপরন্তু তাদের প্রিয় লেখকের লেখা বই এটি। পাতা উল্টিয়ে  কয়েক লাইন পড়া মাত্রই রাখির মনে হয়েছে, এটি একটি সৃজনশীল অনবদ্য রচনা। তাই পিতৃস্নেহের কাছে বইটির বিক্রয়মূল্য হার মানল।

আরো কয়েকটি বই কিনে পিতাসহ তারা দুইজন  সন্ধ্যার খানিক পর বাড়ি ফিরলেন। এবার বাসায় শুরু হল কাড়াকাড়ি, কার আগে কে "এখন তখন মানিক রতন" পড়বে? শেষ পর্যন্ত পড়ার ঝগড়া তাদের আম্মুকে মিমাংসা করতে হল। 

 বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনী পড়ে অপূর্বের মনে শখ জাগল যে, সে বড় হয়ে বিজ্ঞানী হবে। একদিন খাবার টেবিলে রাখি বলে যে, তুই বিজ্ঞানী হয়ে এমন কী আর  লাভ হবে?একটি খেলার মাঠ তো আর বানাতে পারবে না ; বরং ডাক্তার হও, মানুষের অনেক সেবা করতে পারবে। জবাবে অপূর্ব বলে যে, খেলার মাঠও বানাতে পারব। শূন্যে বিশাল বিশাল বেলুন উড়িয়ে তার উপর ছাদ বানাব, তারপর ইচ্ছেমত ক্রিকেট খেলার আয়োজন করে ছক্কা হাঁকাব। রাখি বলে,আরে এত বড় ছাদে উঠবি কিভাবে? অপূর্ব একটু চিন্তা করে বলে, বেলুন উড়িয়ে। খেলোয়ারগণ পড়ে গেলে কী হবে? অপূর্ব বলে, তুমি আছ না?  তুমি না ডাক্তার হবে ! রাখি বলে, আমি তোর মত খেলোয়ারদের চিকিৎসা করব না ; তোর মত পঁচা খেলোয়ার আমার দরকার নাই, অঘা বিজ্ঞানীও আমার দরকার নাই। 

এ কথা শুনামাত্রই অপূর্ব তার হাতে থাকা গ্লাস ভর্তি পানি রাখির মাথায় ঢেলে দিল। 

 

f t g m

প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী : ডা: মো: হেলাল উদ্দিন

ব্যবহারের শর্তাবলী                                               গোপনীয়তার নীতি